Thursday , November 23 2017
শিরোনাম
You are here: Home / উপজেলা / মুরাদনগরে গৃহবধূকে কুপিয়ে আহত করার অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান আটক

মুরাদনগরে গৃহবধূকে কুপিয়ে আহত করার অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান আটক

মুরাদনগরে গৃহবধূকে কুপিয়ে আহত করার অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান আটক
মুরাদনগর (কুমিল্লা) প্রতিনিধি
কুমিল্লা মুরাদনগর উপজেলায় এক গৃহবধূকে কুপিয়ে ২’লক্ষ টাকা ছিনতাই করার অভিযোগ এনে গত ৩০ আগস্ট ইউপি চেয়ারম্যানকে হুকুমের আসামি করে ১৩ জনের নামে কুমিল্লার আদালতে মামলা দায়ের করে ভুক্তভোগী ঐ নারী। এ ঘটনায় পাহাড়পুর ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও ১ নং ওয়াডের ইউপি সদস্য ইমরান হোসেন সরকাকে(৪০) আটক করেছে পুলিশ।
গত বৃহস্পতিবার বিকেলে তাকে কুমিল্লা জেলহাজতে প্রেরণ করে মুরাদনগর থানা পুলিশ।
অভিযোগে সূত্রে জানা যায়, গত ৬ আগস্ট সরমকান্দা গ্রামের ছিদ্দিক মিয়ার স্ত্রী রোকেয়া বেগম সকাল ৮টার দিকে ছেলেকে বিদেশে পাঠানোর ২ লাখ টাকা নিয়ে প্রান্তি গ্রামে মেয়ের বাড়ি যাওয়ার পথে ভারপ্রাপ্ত ইউপি চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী সিএনজি চালিত অটোরিকশা থেকে জোর করে নামিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে এবং সাথে থাকা টাকা ছিনিয়ে নেয়। এ সময় গৃহবধূ চিৎকার করলে স্থানীয়রা ছুটে আসলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় গৃহবধূকে মুরাদনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্র্তি করা হয়।  এ ঘটনায় ভিকটিম রোকেয়া বেগম বাদী হয়ে ৩০ আগস্ট কুমিল্লার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের ৮নং আমলী আদালতে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ইমরান সরকারকে হুকুমের আসামি করে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে আরো অজ্ঞাত ৮ জনসহ মোট ১৩ জনের নামে একটি মামলা করেন। বৃহস্পতিবার সকালে মুরাদনগর থানার এসআই জাহাঙ্গীর আলম তার নিজ বাড়ি থেকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ইমরান হোসেনকে আটক করেন।
এ ব্যাপারে মুরাদনগর থানার ওসি বদিউজ্জামান বলেন, আদালতে মামলা হয়েছে। পরে তা থানায় এজহারভুক্ত করা হয়েছে। সেই মামলার ১নং আসামি ইমরান সরকার। তাকে গ্রেফতার করে বৃহস্পতিবার বিকেলে কুমিল্লা জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। আর অন্য আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

About admin

Comments are closed.

Scroll To Top