Tuesday , November 21 2017
শিরোনাম
You are here: Home / জেলা / মৌলভীবাজার বিআরটিএ অফিসে জরিমানা দিয়েই বহাল

মৌলভীবাজার বিআরটিএ অফিসে জরিমানা দিয়েই বহাল

মৌলভীবাজার বিআরটিএ অফিসে  জরিমানা দিয়েই বহাল
মশাহিদ আহমদ, মৌলভীবাজার
জেলা প্রশাসনের অভিযানেও দালাল মুক্ত হয়নি মৌলভীবাজার বিআরটিএ অফিস। সোনার ডিম নামে পরিচিত এখানকার চাকুরীহীন চাকুরেরাই   কর্মকর্তা-হর্তাকর্তা। রসুনে একাধিক বিচ থাকলেও এর মৃল শিখর এক জায়গায় রয়েছে বলে সচেতন মহল মনে করেন। অভিযোগ রয়েছে, এডি জয়নাল আবেদীন নিয়মিত অফিসে আসেননা। অফিসের সকল জরুরী কাজ সম্পন্ন করেন এ সব দালালরা। গত ১৩ আগষ্ট বিকাল ৪টার দিকে মৌলভীবাজার বিআরটিএ অফিসে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আল- বশিরুল ইসলাম এর নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করে মৌলভীবাজার বিআরটিএ অফিসের এক চাকুরীহীন চাকর সদর উপজেলার আব্দুল মতলিব এর পুত্র কয়ছর (৫২) কে মোটরযান অধ্যাদেশ ১৯৮৩ইং আইনে ৫শত টাকা জরিমানা ও জুড়ী উপজেলার জাঙ্গিরাই গ্রামের অদু মিয়ার পুত্র হেলাল উদ্দিন (৪১)কে ৫শত টাকা জরিমানা ও দালালীর দায়ে ১২ দিনের সাজা প্রদান করা হয়। এ সময় কয়ছর (৫২) জরিমানার টাকা পরিশোধ করলে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এবং হেলাল উদ্দিন (৪১)কে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়। কয়ছর জরিমানার টাকা পরিশোধ করেই সরকারী অফিসে পুনরায় চেয়ার টেবিল নিয়ে বসে অফিস করছেন সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত। দীর্ঘদিন থেকে একটি দালালচক্র বিআরটিএ অফিসকে ঘিরে রেখেছে। প্রয়োজনীয় কাজে আসা লোকজনকে প্রায়ই হয়রানির শিকার হতে হয়। ‘বিআরটিএ’ অফিস জেলার সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্থ প্রতিষ্ঠান। অফিসটিতে সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারী বলতে রয়েছেন এডি জয়নাল আবেদীন, ও এসিস্ট্যান্ট এমভিআই (বর্তমানে ভারপ্রাপ্ত)  হাসান ও অফিস সহকারী নজরুল । বাকীরা সবাই চাকুরীহীন চাকুরে। দস্তুর মত অফিসের চেয়ার টেবিলে বসে কাজ করা-ই শুধু নয়, কর্মকর্তা কর্মচারীসহ গোটা অফিসটি নিয়ন্ত্রণও করে এসব চাকুরীহীন চাকুরেরা। এখানকার প্রধান দালাল টাঙ্গাইলের মির্জাপুরের শাহজাহান, কুমিলালার রসুলপুরের শিমুল ও আবুল কাসেম, চাঁদপুরের দুই ভাই করিম ও রহিম এবং মৌলভীবাজারের স্থানীয় দুই ভাই শাকিল ও জামিল, দস্তুর মত অফিসের ভিতরে অফিসের চেয়ার টেবিলে বসে কাজ করছে প্রকাশ্যে। এছাড়া, অফিসে ও বাইরে যখন যেখানে প্রয়োজন সেখানেই কাজ করে সুন্দর আলী, দেলোয়ার হোসেন তরফদার, মিন্টু, মাহমুদ, রিপনসহ অনেকেই। এ প্রতিবেদক মৌলভীবাজার বিআরটিএ অফিস গিয়ে চাকুরীহীন চাক কে দেখতে পেয়ে মৌলভীবাজার বিআরটিএ অফিসে অভিযান পরিচালনাকারী নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আল- বশিরুল ইসলাম বলেন- আমি অভিযান পরিচালনা করে জরিমানা করেছি। বিষয়টি আমি দেখছি।

About admin

Comments are closed.

Scroll To Top