Tuesday , November 21 2017
শিরোনাম
You are here: Home / জাতীয় / ঈদযাত্রায় জনদুর্ভোগ নিয়ে প্রকৌশলী ও ঠিকাদারতে সতর্ক করলেন সেতুমন্ত্রী

ঈদযাত্রায় জনদুর্ভোগ নিয়ে প্রকৌশলী ও ঠিকাদারতে সতর্ক করলেন সেতুমন্ত্রী

ঈদযাত্রায় জনদুর্ভোগ নিয়ে প্রকৌশলী ও ঠিকাদারতে সতর্ক করলেন সেতুমন্ত্রী

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

বৃষ্টির কারণে সড়কের দুর্গতিতে যাতে ঈদযাত্রায় দুর্ভোগ পোহাতে না হয় সেজন্য সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলী ও ঠিকাদারদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। সড়ক ও জনপথ বিভাগের প্রকৌশলীদের ঈদের ছুটি বাতিল করে রাস্তায় খানা-খন্দ মেরামত ও পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য তাদের সার্বক্ষণিক মাঠে থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। কোরবানির ঈদ সামনে রেখে গতকাল শুক্রবার সকালে গাজীপুরের কালিয়াকৈরে চন্দ্রা ত্রিমোড় এলাকার যানজট পরিস্থিতি দেখতে গিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেন মন্ত্রী। তিনি বলেন, বর্ষাকলে বৃষ্টিতো হবেই। বৃষ্টিকে ভিলেন বানিয়ে, অজুহাত সৃষ্টি করে রাস্তা যানবাহন চলাচলের অনুপযোগী থাকবে- এটা হয় না। বৃষ্টিরও ট্রিটমেন্ট আছে। যখন বৃষ্টি চলে, তখনও রাস্তার ট্রিটমেন্ট থাকতে হবে। চিকিৎসা আছে… যখন যেই রোগ, সেই রোগের চিকিৎসা করতে হবে। বৃষ্টি-বাদলের মধ্যেও সড়ক যেন ব্যবহার উপযোগী থাকে, সেজন্য প্রকৌশলী, ঠিকাদারদের পাশাপাশি হাইওয়ে পুলিশকেও মাঠে থাকার নির্দেশ দেওয়ার কথা বলেন কাদের। আমাদের সড়ক আমরা সচল রাখব, যানবহন চলাচলের উপযোগী রাখব- এটাই আমাদের সিদ্ধান্ত। এখানে হাইওয়ে পুলিশ, পুলিশ, মালিক-শ্রমিক সবার সাথে আমাদের কথা হয়েছে। জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন, সর্বত্রই আমরা যোগাযোগ করেছি। দেশের মানুষ গত রোজার ঈদে নির্বিঘেœ বাড়ি যেতে পেরেছে দাবি করে সড়ক পরিবহন মন্ত্রী বলেন, এবারও ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক হবে বলে তিনি আশা করছেন। কোরবানির মওসুমে ঈদযাত্রার পথে পশুবাহী যানবাহনকে যানজটের অন্যতম কারণ হিসেবে চিহ্নিত করেন কাদের। আমরা সংশ্লিষ্টদের আগেভাগে জানিয়ে দিয়েছি, পশুবাহী গাড়িগুলোর যেন ফিটনেস থাকে। এগুলো যখন তখন যদি আটকে যায়, বন্ধ হয়ে যায়, তা হলেতো যান চলাচলে সমস্যা হবে, যানজটের কারণ হবে। মন্ত্রী জানান, বন্যার কারণে দেশের অনেক রাস্তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। উত্তরাঞ্চলে বিভিন্ন সড়কের ৫০টি পয়েন্টে এক থেকে তিন কিলোমিটার রাস্তা এখনও পানির নিচে। পানি কমার সঙ্গে সঙ্গে আমাদের প্রকৌশলীরা সেখানে গিয়ে রাস্তা মেরামতের কাজ সম্পন্ন করছে। এবার আমাদের নজরদারি রয়েছে, কড়া নজরদারি রয়েছে। কারণ এবার দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতি আমাদের সতর্ক করে দিয়েছে। কোনো অবস্থায় যাতে কোনো রাস্তা চলাচলের অনুপযোগী না হয়, সেজন্য আমাদের অফিসাররা, প্রকৌশলীরা ২৪ ঘণ্টা রাস্তায় থাকবে। কাদের জানান, সওজের প্রকৌশলীরা ঈদের দিন সকাল ৬টা থেকে ২টা পর্যন্ত ছুটি পাবেন। বাকি সময় তাদের ‘রাস্তায় থাকার’ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। হাইওয়ে পুলিশের ডিআইজি মো. আতিকুল ইসলাম, সড়ক ও জনপথ বিভাগের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী আবদুস সবুর, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. সবুজ উদ্দিন খান, গাজীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন।

About admin

Comments are closed.

Scroll To Top